অবর্ণ থেকে বর্ণর জন্য: পুরুষটি সকল লোকেদের জন্য আসছেন

পুরুষসুক্তর প্রারম্ভে ঋগ্বেদের মধ্যে বেদ আসন্ন ব্যক্তির সমন্ধে পূর্বাভাষ   দিয়েছিল I তারপরে আমরা হিব্রু বেদের সঙ্গে চালিয়ে গেলাম, যা পরামর্শ দেয় যে সংস্কৃত এবং হিব্রু বেদ (বাইবেল) উভয়ই যেশু সৎসঙ্গের (নাসরতের যীশু) দ্বারা পূর্ণ হয়েছিল I

তাহলে যীশু কি ভবিষ্যদ্বাণী করা পুরুষ বা খ্রীষ্ট ছিলেন? তার আগমন কি কেবল একটি নির্দিষ্ট গোষ্ঠীর জন্য ছিল, বা সকলের জন্য – বর্ণ থেকে অবর্ণ, সমস্ত জাতি সহ?

পুরুষসুক্তর মধ্যে জাতি (বর্ণ) 

পুরুষ সম্বন্ধে পুরুষসুক্ত বলল যে:

পুরুষসুক্ত পদ 11-12 – সংস্কৃতসংস্কৃত ট্রান্সলিটারেশনবাংলা অনুবাদ
यत पुरुषं वयदधुः कतिधा वयकल्पयन |
मुखं किमस्य कौ बाहू का ऊरू पादा उच्येते ||
बराह्मणो.अस्य मुखमासीद बाहू राजन्यः कर्तः |
ऊरूतदस्य यद वैश्यः पद्भ्यां शूद्रो अजायत ||
11 yat puruṣaṃ vyadadhuḥ katidhā vyakalpayan |
mukhaṃ kimasya kau bāhū kā ūrū pādā ucyete ||
12 brāhmaṇo.asya mukhamāsīd bāhū rājanyaḥ kṛtaḥ |
ūrūtadasya yad vaiśyaḥ padbhyāṃ śūdro ajāyata
11 পুরুষকে বিভাজন করার সময়ে তারা কতগুলো অংশ করল? তারা তার মুখ, তার বাহুকে কি বলে? তার তার জঙ্ঘা এবং চরণকে কি বলে?
12 ব্রাহ্মণই ছিল তার মুখ, তার উভয় বাহু রাজন্যতে তৈরী ছিল I 
তার জঙ্ঘা হ’ল বৈশ্য, তার চরণ থেকে শুদ্র উৎপন্ন হল I

সংস্কৃত বেদের মধ্যে জাতি সমূহ বা বর্ণের সম্বন্ধে এটি সব থেকে প্রথম দিকের উল্লেখ I এটি পুরুষের শরীরকে বিচ্ছিন্ন করার সাথে সাথে চার জাতি সমূহকে  বর্ণনা করে: তার মুখ থেকে ব্রাহ্মিণ জাত/বর্ণ, তার বাহু থেকে রাজন্য (আজকের দিনে ক্ষত্রিয় জাত/বর্ণ বলে পরিচিত), তার জঙ্ঘা থেকে বৈশ্য, এবং তার চরণ থেকে শুদ্র I পুরুষ হতে গেলে যীশুর পক্ষে তাকে অবশ্যই প্রত্যেককে প্রতিনিধিত্ব করা উচিত I

তিনি কি করেন?

ব্রাহ্মিণ এবং ক্ষত্রিয় রূপে যীশু 

আমরা দেখলাম যে ‘খ্রীষ্ট’ একটি প্রাচীন হিব্রু উপাধি যার মানে ‘শাসক’ – শাসকদের শাসক I ‘খ্রীষ্ট’ হিসাবে, যীশু সম্পূর্ণরূপে ক্ষত্রিয়ের সাথে চিহ্নিত হয় এবং প্রতিনিধিত্ব করে I এছাড়াও যাজক রূপে আসতে আমরা দেখলাম যে  ‘শাখা’ হিসাবে যীশুকে ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়েছিল, তাই তিনি সম্পূর্ণরূপে ব্রাহ্মিণের সঙ্গে চিহ্নিত হন এবং প্রতিনিধিত্ব করেন I প্রকৃতপক্ষে, হিব্রু ভবিষ্যদ্বাণী ইঙ্গিত দিয়েছিল যে একজন ব্যক্তির মধ্যে তিনি যাজক এবং রাজার দুই ভূমিকাকে ঐক্যবদ্ধ করবেন I

13 তিনি প্রভুর মন্দির গাঁথবেন ও সম্মান গ্রহণ করবেন| তিনি সিংহাসনে বসে শাসন করবেন| আর একজন যাজক তার সিংহাসনের পাশে দাঁড়াবে| এই দুই জন একসাথে শান্তিতে কাজ করবে|

সখরিয় 6:13

বৈশ্য হিসাবে যীশু 

এছাড়াও হিব্রু ঋষি/ভাববাদীরা ভবিষ্যদ্বাণী করলেন যে আসন্ন একজন, বণিকের  মতন ব্যবসায়ী হবেন I তারা ভবিষ্যদ্বাণী করলেন:

কারণ আমি, প্রভু তোমার ঈশ্বর| আমি ইস্রায়েলের পবিত্রতম তোমার রক্ষাকর্তা| আমি তোমার জন্য মূল্য দিতে মিশরকে দিয়েছিলাম| আমি তোমাকে আমার করতে কূশ ও সবা দিয়েছিলাম|

যিশাইয় 43:3

আসন্ন একজনের সঙ্গে ঈশ্বর ভবিষ্যদ্বাণীপূর্ণভাবে কথা বলছেন, বলেন যে তিনি  জিনিসের ব্যবসা করবেন না বরং তিনি লোকেদের জন্য ব্যবসা করবেন তার জীবনের বিনিময়ে I তাই আসন্ন একজন লোকেদের মুক্ত করার ব্যবসায়ে,  একজন বণিক হবেন I একজন বণিক হিসাবে তিনি বৈশ্যর সঙ্গে চিহ্নিত হন এবং প্রতিনিধিত্ব করেন I

শুদ্র – দাস 

এছাড়াও ঋষি/ভাববাদীরা একজন দাস হিসাবে তার আসন্ন ভূমিকা সম্বন্ধে অত্যন্ত বিস্তৃতভাবে ভবিষ্যদ্বাণী করলেন I আমরা দেখলাম কিভাবে ভাববাদীরা ভবিষ্যদ্বাণী করলেন যে শাখাটি একজন দাস হবে যার সেবা হবে পাপকে অপসারণ করা:

ওহে মহাযাজক যিহোশূয় এবং তোমার সামনে য়ে মহাযাজকেরা বসে আছে, সবাই দয়া করে শোন| অদূর ভবিষ্যতে আমার বিশেষ দাসকে যখন আমি আনব তখন কি ঘটবে তা দেখাবার জন্য এই লোকেরা তার উদাহরণস্বরূপ| তাকে ‘শাখা’ এই নামে ডাকা হয়|
দেখ, আমি যিহোশূয়র সামনে একটা বিশেষ ধরণের পাথর রাখছি| ঐ পাথরটার সাতটা দিক রয়েছে| আমি একটি বিশেষ বার্তা তাতে খোদাই করব| এটাই দেখাবে য়ে আমি একদিনে এই দেশের প্রতিটি পাপ দূর করব|”

সখরিয় 3:8-9

আসন্ন শাখাটি, যিনি যাজক, শাসক,এবং বণিক ছিলেন, এছাড়াও একজন দাস – শুদ্র ছিলেন I যিশাইয় তার দাসের (শুদ্র) ভূমিকা সম্বন্ধে অত্যন্ত বিস্তৃতভাবে ভবিষ্যদ্বাণী করলেন I তার ভবিষ্যদ্বাণীতে ঈশ্বর সমস্ত ‘দূরবর্তী’ জাতি সমূহ (অর্থাৎ আমাদের!) এই শুদ্রর সেবাতে মনোযোগ দিতে পরামর্শ দেন I

রবর্তী স্থানের সব লোকরা আমার কথা শোন| পৃথিবীবাসী সবাই আমার কথা শোন! আমি জন্মাবার আগেই প্রভু আমাকে তাঁর সেবা করতে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন| আমি মাতৃজঠরে থাকার সময়েই প্রভু আমার নাম ধরে ডাক দেন|
প্রভু আমাকে তাঁর কথা বলতে ব্যবহার করেন! তিনি আমার মুখকে ধারালো তরবারির মতো তৈরী করেছেন| তিনি আমাকে নিজের হাতে লুকিয়ে রেখে আমাকে রক্ষাও করেছেন| প্রভু আমাকে একটি ধারালো তীরের মতো ব্যবহার করলেও, তিনি আমাকে তাঁর তীরের থলিতে লুকিয়ে রাখেন|
প্রভু আমাকে বললেন, “ইস্রায়েল তুমি আমার ভৃত্য! তোমার জন্য আমি যা করি তার জন্য আমি সম্মানিত হব|”
আমি বললাম, “আমি কঠোর পরিশ্রম করেছি| আমি নিজেকে ক্ষয় করেছি, কিন্তু কোন প্রযো-জনীয কাজ করি নি| আমি আমার সমস্ত শক্তি ব্যয করেছি| কিন্তু আমি সত্যিকারের কিছুই করতে পারিনি| তাই প্রভুকেই ঠিক করতে হবে| তিনি আমাকে নিয়ে কি করবেন| ঈশ্বরই আমার পুরস্কারের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন|
প্রভু আমাকে আমার মাতৃগর্ভে সৃষ্টি করেছেন, যাতে আমি তাঁর দাস হতে পারি এবং যাকোব ও ইস্রায়েলকে পথ প্রদর্শন করে তাঁর কাছে ফিরিয়ে আনতে পারি| প্রভু আমাকে সম্মান দেবেন| ঈশ্বরের কাছ থেকে আমি আমার শক্তি পাব|”প্রভু আমাকে বলেন,
“তুমি আমার খুবই গুরুত্বপূর্ণ দাস| ইস্রায়েলের লোকরা এখন বন্দী| কিন্তু তাদের আমার কাছে আনা হবে| যাকোবের পরিবারগোষ্ঠী আমার কাছেই ফিরে আসবে| কিন্তু তোমার অন্য কাজ আছে, এর থেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ সেই কাজ! আমি তোমাকে সমস্ত জাতির আলো হিসেবে তৈরি করব| বিশ্ববাসীকে রক্ষা করতে তুমিই হবে আমার পথ|”

যিশাইয় 49:1-6

যদিও হিব্রু/যিহূদি জাতি থেকে আসছেন, এটি ভবিষ্যদ্বাণী করল যে এই দাসের সেবা ‘পৃথিবীর শেষ প্রান্ত পর্যন্ত পৌঁছবে’ I যেমন ভবিষ্যদ্বাণী করা হয়েছিল  যীশুর সেবা বাস্তবিকই পৃথিবীর উপরে সমস্ত জাতিকে স্পর্শ করেছে I দাস হিসাবে, যীশু সম্পূর্ণরূপে সমস্ত শুদ্রর সঙ্গে চিহ্নিত হন এবং প্রতিনিধিত্ব   করলেন I 

এছাড়াও অবর্ণ …

সমস্ত লোকদের জন্য মধ্যস্ততা করতে এছাড়াও যীশুকে অবর্ণ বা তফসিলি জাতি, উপজাতি এবং দলিতদের প্রতিনিধিত্ব করতে হয় I কিভাবে তিনি করবেন? হিব্রু বেদ ভবিষ্যদ্বাণী করল যে তাকে সম্পূর্নভাবে ভগ্ন এবং তুচ্ছ করা হবে, অবর্ণ হিসাবে আমাদের মধ্যে বাকিদের দ্বারা যেমন দেখা হয় I

কি উপায়ে?

এখানে কিছু ব্যাখ্যা সন্নিবেশ করা সহ সম্পূর্ন ভবিষ্যদ্বাণীটি রয়েছে I লক্ষ্য করুন যে এটি ‘তিনি’ এবং ‘তাঁকে’ এর সম্বন্ধে কথা বলেন তাই এটি একজন আসন্ন পুরুষের ভবিষ্যদ্বাণী করে I যেহেতু ভবিষ্যদ্বাণীটি ‘অঙ্কুর’ এর চিত্র ব্যবহার করে আমরা জানি এটি শাখাটিকে বোঝাচ্ছে যিনি যাজক এবং শাসক ছিলেন I তবে বর্ণনাটি অবর্ণ সম্বন্ধে I

আসন্ন তুচ্ছ একজন 

সত্যিই বিশ্বাস করেছিল, আমাদের ঘোষণার কথা? কে সত্যি সত্যিই গ্রহণ করেছিল প্রভুর শাস্তি?
সে প্রভুর সামনে, ছোট গাছের মতে বড় হতে লাগল| সে ছিল শুকনো জমিতে গাছের শিকড়ের বড় হওয়ার মতো| তাকে দেখতে বিশেষ কিছু লাগত না| তার কোন বিশেষ মহিমা ছিল না| যদি আমরা তার দিকে তাকাতাম তবে তাকে ভালো লাগার মত বিশেষ কিছুই চোখে পড়ত না|
লোকে তাকে ঘৃণা করেছিল, তার বন্ধুরা তাকে ত্যাগ করেছিল| তার প্রচুর দুঃখ ছিল| অসুস্থতার বিষয়ে তার অভিজ্ঞতা ছিল| লোকরা তার কাছ থেকে লুকিয়ে থাকত| আমরা তাকে ঘৃণা করতাম| আমরা তার কথা চিন্তাও করিনি|

যিশাইয় 53:1-3

যদিও ‘অঙ্কুরটি’ ঈশ্বরের সামনে (অর্থাৎ বট বৃক্ষের শাখা), এই পুরুষটি সম্পূর্ন কষ্টভোগ সহ ‘তুচ্ছ’ এবং ‘প্রত্যাখ্যাত’ হবে এবং অন্যদের ‘দ্বারা কম সম্মানে রাখা’ হবে I তাকে আক্ষরিকভাবে অস্পৃশ্য রূপে গন্য করা হবে I এই আসন্ন একজন তখন তাদের প্রতিনিধিত্ব করতে সক্ষম হয় যারা অস্পৃশ্যদের মতন ততটাই ভগ্ন যতটা তফসিলি উপজাতি (বনবাসী) এবং পিছড়া জাতি সমূহ – দলিতরা I

কিন্তু সে আমাদের অসুখগুলোকে বয়ে বেড়িযে-ছিল| সে আমাদের যন্ত্রণা ভোগ করেছিল| এবং আমরা মনে করেছিলাম ঈশ্বর তাকে শাস্তি দিচ্ছেন| তার কোন কৃতকর্মের জন্য ঈশ্বর তাকে শাস্তি দিচ্ছেন বলে আমরা মনে করেছিলাম|
কিন্তু আমাদেরই ভুল কাজের জন্য তাকে আহত হতে হয়েছিল| আমাদের পাপের জন্য সে ক্ষত-বিক্ষত হয়েছিল| আমাদের কাঙ্খিত শাস্তি সে পেয়েছিল| তার আঘাতের জন্য আমাদের আঘাত সেরে উঠেছিল|

যিশাইয় 53:4-5

আমরা মাঝে মাঝে অন্যদের দুর্ভাগ্যের বিচার করি, বা তাদের দিকে দেখি যারা সমাজের মধ্যে নিচুতলার অবস্থায় আছে, তাদের পাপের ফলস্বরূপ, বা কর্মের কারণে I অনুরূপভাবে, এই পুরুষটির দুর্দশা এত দুর্দান্ত হবে যে আমরা অনুমান করি তিনি ঈশ্বরের দ্বারা শাস্তি পাচ্ছেন I এইজন্যে তিনি তুচ্ছ হবেন I তবে তিনি তা নিজের পাপের জন্য শাস্তি পাবেন না – বরং আমাদের পাপের জন্য I তিনি আমাদের নিরাময় এবং শান্তির জন্য এক ভয়াভয় বোঝা বহন করবেন I  

এটিকে নাসরতের যীশুর ক্রুশারোপনের মধ্যে পরিপূর্ণ করা হয়েছিল, যাকে ক্রুশের উপরে ‘বিদ্ধ করা’ হয়েছিল, জর্জরিত এবং নিপীড়িত I তথাপি এই ভবিষ্যদ্বাণীটি তার জীবিত থাকার পূর্বে 750 বছর পূর্বে লেখা হয়েছিল I কম সম্মানে থাকা   এবং তার কষ্টভোগের মধ্যে, যীশুর ভবিষ্যদ্বাণীটিকে পুরণ করেছিলেন এবং এখন সমস্ত পিছিয়ে পড়া জাতি এবং উপজাতি সমূহকে প্রতিনিধিত্ব করতে পারেন I

আমরা সবাই হারিযে যাওয়া মেষের মত ঘুরে বেড়িযেছিলাম| আমরা সবাই আমাদের নিজেদের পথে গিয়েছিলাম যখন প্রভু আমাদের সব শাস্তি তাকে দিয়ে ভোগ করাচ্ছিলেন|
তার সঙ্গে নিষ্ঠুর ব্যবহার করা হয়েছিল এবং সে আত্মসমর্পণ করেছিল| সে কখনও প্রতিবাদ করেনি| মেষকে যেমন হত্যার জন্য নিয়ে যাওয়া হলে সে নালিশ করে না তেমনি সেও চুপচাপ ছিল| মেষ যেমন তার পশম কাটার সময় কোন শব্দ করে না, সেও তেমনি তার মুখ খোলে নি|

যিশাইয় 53:6-7

এটি আমাদের পাপ এবং ধর্মা থেকে আমাদের বিপথগামিতা যা এই পুরুষটির আমাদের অপরাথ বা পাপসমূহ বহন করার জন্য দরকার I আমাদের জায়গায় বধ হতে তিনি শান্তিপূর্ণভাবে যেতে ইচ্ছুক হবেন, প্রতিবাদ না করে, বা এমনকি ‘তার মুখ না খুলে’ I যীশু যেভাবে স্বেচ্ছায় ক্রুশে গিয়েছিলেন তাতে এটি যথাযথভাবে পরিপূর্ণ হয়েছিল I

মানুষ শক্তি প্রযোগ করে তাকে নিয়েছিল এবং তার প্রতি ন্যায্য বিচার করেনি| তাঁর ভবিষ্যত্‌ পরিবার সম্পর্কে কেউ কিছু বলেনি| কারণ সে জীবিতদের দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছিল| আমার লোকদের পাপের জন্য সে শাস্তি পেয়েছিল|

যিশাইয় 53:8

ভবিষ্যদ্বাণীটি ব্যক্ত করল যে তাকে ‘জীবিতদের দেশ থেকে বিচ্ছিন্ন করা হবে’, পরিপূর্ণ হ’ল যখন যীশু ক্রুশের উপরে মারা গেলেন I

তার মৃত্যু হয়েছিল এবং ধনীদের সঙ্গে তাকে সমাহিত করা হয়েছিল| তাকে দুষ্ট লোকদের সঙ্গে সমাহিত করা হয়েছিল যদিও সে কোন হিংস্র কাজ করেনি| সে কখনও কাউকে প্রতারণা করেনি|

যিশাইয় 53:9

যীশু একজন ‘দুষ্ট’ পুরুষ হিসাবে দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে মারা গেলেন এমনকি যদিও ‘তিনি কোনো হিংসা করেন নি’ এবং ‘মুখের মধ্যে কোনো ছলনা ছিল’ না I তথাপি, তাকে এক ধনী যাজক আরিমাথিয়ার যোষেফের কবরে সমাধি দেওয়া হ’ল I যীশু ‘দুষ্টের সঙ্গে একটি কবরে নির্ধারিত’ কিন্তু তার নৃত্যুতে ধনীর সঙ্গে’ হয়ে উভয়কে পূর্ণ করলেন I

10 প্রভু তাকে মেরে পিষে ফেলার সিদ্ধান্ত নেন| যদি সে দোষমোচনের বলি হিসেবে নিজেকে উত্সর্গ করে, সে তার সন্তানের মুখ দেখবে এবং দীর্ঘ দিন বাঁচবে| ঈশ্বরের অভিপ্রায় তার হাতে সফল হবে|

যিশাইয় 53:10

নিষ্ঠুর মৃত্যু ছিল কোনো ভয়ানক দুর্ঘটনা বা দুর্ভাগ্য নয় I এটি ‘সেই সদাপ্রভুর’ ইচ্ছা’ ছিল I 

কেন?

কেননা এই পুরুষটির ‘জীবন’ টি একটি ‘পাপের জন্য উৎসর্গ’ হবে I   

কার পাপ?

আমাদের মধ্যে যারা ‘অনেক জাতি সমূহ’ যারা ‘বিপথে চলে গেছে’ I যীশু যখন ক্রুশে মারা গেলেন, এটি আমাদের সকলকে জাতি, ধর্ম বা সামাজিক অবস্থান নির্বিশেষে পাপের থেকে শুদ্ধ করতে ছিল I

তুচ্ছ একজন বিজয়ী হয় 

11 তার আত্মা বহু কষ্ট পেলেও সে অনেক ভালো জিনিস ঘটা দেখতে পাবে| সে যেসব জিনিস শিখেছে তা নিয়ে সন্তুষ্ট হবে| আমার ভালো দাসটি অনেক মানুষকে ধার্মিক করবে| সে তাদের অপরাধের দরুণ শাস্তি ভোগ করবে|

যিশাইয় 53:11

ভবিষ্যদ্বাণীটির সুর এখন বিজয়ী হতে বদলে যায় I ভয়ংকর ‘কষ্টভোগের’ পরে (বা ‘তুচ্ছ’ হয়ে, এবং ‘জীবিত দেশের থেকে বিছিন্ন হয়ে’ এবং ‘একটি কবরে’ নির্ধারিত হয়ে) এই দাস ‘জীবনের আলো’ দেখবে I  

তিনি জীবনে ফিরে আসবেন! এবং এইরকম করার দ্বারা এই দাস অনেককে ‘ন্যায়সঙ্গত’ করবেন I   

‘ন্যায়সঙ্গত’ করা ‘ধার্মিকতা’ পাওয়ার মতন একই হয় I ঋষি আব্রাহামের স্বপক্ষে ‘ধার্মিকতা’ ‘জমা করা’ বা দেওয়া হয়েছিল I এটিকে শুধুমাত্র তাকে তার বিশ্বাসের কারণে দেওয়া হয়েছিল I অনুরূপভাবে এই দাস যিনি অস্পৃশ্য হওয়ার জন্য এতটা নিচু হবেন ন্যায়সঙ্গত করবেন বা ‘অনেকের’ পক্ষে ধার্মিকতা জমা দেবেন I তার মৃত্যুর পরে মৃতদের মধ্য থেকে উত্থিত হয়ে এটাকেই প্রকৃতপক্ষে যীশু সম্পন্ন করেছিলেন এবং আমাদের ন্যায়সঙ্গত করেন I 

12 এই কারণে আমি তাকে অনেক লোকের মধ্যে পুরস্কৃত করব| যে সব লোকরা শক্তিশালী তাদের সঙ্গে সমস্ত জিনিসে তার অংশ থাকবে|আমি এটা তার জন্য করব কারণ সে লোকের জন্য নিজের জীবন উত্সর্গ করে মারা গিয়েছিল| তাকে এক জন অপরাধী হিসেবে গণ্য করা হত| কিন্তু সত্যটা হল সে অনেক লোকের পাপ বহন করে ছিল| এবং এখন সে পাপী লোকদের সপক্ষে কথা বলছে|

যিশাইয় 53:12

যদিও যীশুর জীবিত থাকার 750 বছর পূর্বে এটিকে লেখা হয়েছিল, এটি ঈশ্বরের পরিকল্পনাকে দেখাতে এতটা বিস্তৃত ভাবে তার দ্বারা পরিপূর্ণ হয়েছিল I এছাড়াও এটি দেখায় যে যীশু অবর্ণকে প্রতিনিধিত্ব করতে পারেন, যাদেরকে প্রায়শই নিম্নতম সম্মানের মধ্যে রাখা হয় I আসলে, তিনি প্রতিনিধিত্ব করতে, তাদের পাপ সমূহ বহন এবং তাদের পাপ, পাশাপাশি ব্রাহ্মিণ, ক্ষত্রিয়, বৈশ্য এবং শুদ্রর পাপ সমূহ থেকে শুদ্ধ করতে এসেছিলেন I     

তিনি ঈশ্বরের পরিকল্পনার কেন্দ্রবিন্দু হয়ে আপনাকে এবং আমাকে জীবনের উপহার দিতে এসেছিলেন – পাপের অপরাধ এবং কর্ম থেকে শুদ্ধ করতে I এই ধরণের একটি উপহারকে সম্পূর্ণরূপে বিবেচনা করা এবং বোঝা কি সার্থক নয়? এটিকে করার বিভিন্ন উপায় সমূহ এখানে রয়েছে:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *