কিভাবে প্রভু যীশুর বলি হতে শুচি করার উপহার পাবেন?

প্রভু যীশু নিজেই সমস্ত মানব জাতির জন্য একটি বলিদান হিসাবে দিতে এসেছিলেন। এই বার্তাটি প্রাচীন আরজি বেদের স্তোত্রগুলির পাশাপাশি প্রাচীন হিব্রু বেদের প্রতিশ্রুতি এবং উত্সবগুলিতে পূর্বরচিত। প্রতিবার আমরা প্রার্থস্নান (বা প্রতাশন) মন্ত্রটির প্রার্থনা পাঠ করে আমরা যে প্রশ্ন জিজ্ঞাসা করি তার উত্তর যীশু। এটা কিভাবে? বাইবেল (বেদ পুস্তকান) একটি কর্মিক আইন ঘোষণা করেছে যা আমাদের সকলকে প্রভাবিত করে:

কারণ পাপ য়ে মজুরি দেয়, সেই মজুরি হল মৃত্যু৷ কিন্তু ঈশ্বর অনুগ্রহ করে যা দান করেন সেই দান হল আমাদের প্রভু খ্রীষ্ট যীশুতে অনন্ত জীবন৷ পাপের বেতন মৃত্যু কিন্তু………..

রোমীয় ৬:২৩

নীচে আমি একটি দৃষ্টান্তের মাধ্যমে এই কর্মিক আইনটি দেখাব। “মৃত্যুর” অর্থ পৃথকীকরণ। যখন আমাদের আত্মা আমাদের শরীর থেকে পৃথক হয় তখন আমরা শারীরিকভাবে মৃত। একইভাবে আমরা আধ্যাত্মিকভাবে ঈশ্বরের কাছ থেকে পৃথক হয়েছি। এটি সত্য কারণ ঈশ্বর পবিত্র (নিষ্পাপ)।

আমরা আমাদের পাপ দ্বারা aশ্বরের কাছ থেকে পৃথক হয়েছি দু’টি শিংয়ের মধ্যে

আমরা আমাদের পাপের দ্বারা ঈশ্বরের কাছ থেকে পৃথক হয়েছি দুটি বাঁধের মাঝে ফাটলের মত

এই বিচ্ছেদ অপরাধবোধ এবং ভয় সৃষ্টি করে। সুতরাং আমরা প্রাকৃতিকভাবে যা করার চেষ্টা করি তা হ’ল একটি সেতু তৈরি করা যা আমাদের পক্ষ থেকে (মৃত্যুর) Godশ্বরের পক্ষে নিয়ে যায়। আমরা বলিদান করি, পূজা করি, তপস্যা করি, উত্সবে অংশ গ্রহণ করি, মন্দিরে যাই, অনেক প্রার্থনা করি এবং আমাদের পাপ কমাতে বা বন্ধ করার চেষ্টা করি। যোগ্যতা অর্জনের জন্য কাজের এই তালিকাটি আমাদের কারও জন্য খুব দীর্ঘ হতে পারে। সমস্যাটি হ’ল আমাদের প্রচেষ্টা, যোগ্যতা, ত্যাগ এবং তপস্যা অভ্যাস ইত্যাদি যদিও নিজেদের মধ্যে মন্দ না হলেও অপর্যাপ্ত কারণ আমাদের পাপের জন্য প্রদত্ত অর্থের (“মজুরি”) হচ্ছে ‘মৃত্যু’ ’ এটি পরবর্তী চিত্রে চিত্রিত করা হয়েছে।

ধর্মীয় যোগ্যতা – যদিও তা ভাল হতে পারে – আমাদের এবং .শ্বরের মধ্যে বিচ্ছেদকে সরিয়ে দিতে পারে না

এই বিচ্ছেদ অপরাধবোধ এবং ভয়ের কারণ। সুতরাং আমরা স্বাভাবিকভাবে যা করার চেষ্টা করি তা হ’ল একটি সেতু তৈরি করা যা আমাদের দিক থেকে (মৃত্যুর) ঈশ্বরের দিকে নিযে যায়। আমরা বলি উতস্বর্গ করি, পূজা করি, তপস্যা করি, উত্সবে অংশ গ্রহণ করি, মন্দিরে যাই এবং অনেক প্রার্থনা করি এবং পাপ কমাতে বা বন্ধ করার চেষ্টা করি। কাজের এই তালিকাটি যোগ্যতা অর্জনের জন্য আমাদের কাছে কারও জন্য খুব দীর্ঘ হতে পারে। সমস্যাটি হ’ল আমাদের প্রচেষ্টা, যোগ্যতা, ত্যাগ এবং তপস্যা অভ্যাস ইত্যাদি নিজেদের মধ্যে মন্দ না হলেও, যথেষ্ট না কারণ আমাদের পাপের জন্য প্রয়োজনীয় মূল্য্ (`বেতন্’) ‘মৃত্যু’। এটি পরবর্তী চিত্রে চিত্রিত করা হয়েছে।

কার্মিক আইনটি হল একটি খারাপ সংবাদ – এটি এতটাই খারাপ যে আমরা প্রায়শই এটি শুনতে চাই না এবং আমরা প্রায়শই আমাদের জীবনকে বিভিন্ন কার্যকলাপে ভরে রাখি এবং আশা করি যে এই আইনটি চলে যাবে – যতক্ষণ না আমাদের পরিস্থিতির গুরুতর অবস্থা আমাদের আত্মায় ডুবে যায়। কিন্তু বাইবেলে এই কার্মিক আইন দিয়ে শেষ হয় না।

কারণ পাপ য়ে মজুরি দেয়, সেই মজুরি হল মৃত্যু৷ কিন্তু ঈশ্বর অনুগ্রহ করে যা দান করেন সেই দান হল আমাদের প্রভু খ্রীষ্ট যীশুতে অনন্ত জীবন৷ পাপের বেতন মৃত্যু কিন্তু………..

রোমীয় ৬:২৩

ছোট্ট শব্দ ‘কিন্তু’ দেখায় যে, পথ নির্দেশের নিয়ম এক দিক থেকে অন্য দিক দিয়ে চলেছে, সুসংবাদ-সুসমাচার। এটি মোক্ষ এবং জ্ঞানবিদ্যার একটিতে পরিবর্তিত কার্মিক আইন। তাহলে মোক্ষের এই সুসংবাদটি কী?

 পাপের বেতন মৃত্যু কিন্তু ঈশ্বরের দান খ্রীষ্ট যীশুতে অনন্ত জীবন।

রোমীয় ৬:২৩

সুসমাচারের সুসংবাদটি হ’ল এই যে, প্রভু যীশুর’ ক্রুশীয় মৃত্যুর ত্যাগ আমাদের এবং ঈশ্বরের মধ্যে এই বিচ্ছেদকে সেতু বন্ধন করার জন্য যথেষ্ট। আমরা জানি যে তিনি তাঁর মৃত্যুর তিন দিন পরে আবার শারীরিকভাবে পুনরুত্থিত হয়েছেন, একটি শারিরীক পুনরুত্থানের মধ্যে আবার ফিরে এসেছিলেন। যদিও কিছু লোক আজ যীশুর পুনরুত্থানকে অস্বীকার করেন এবং একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে এবং সর্বসমক্ষে বক্তৃতায় দেখানো হয়েছে (এখানে ভিডিও লিঙ্ক)।

যীশু হলেন নিখুঁত পুরূষ এবং নিখুঁত বলিদান প্রদান করেছেন। যেহেতু তিনি একজন মানুষ ছিলেন তিনি একটি সেতু হতে সক্ষম হন যা ছড়িয়ে ছিটিয়ে দেন এবং মানুষকে  স্পর্শ করেন এবং অপরপক্ষে তিনি নিখুঁত ছিলেন ও ঈশ্বরের পক্ষেও ছিলেন। তিনি জীবনের জন্য একটি সেতু এবং এটি নীচে চিত্রিত করা যেতে পারে।

যীশু হলেন সেই সেতু যা Godশ্বর ও মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। তাঁর ত্যাগ আমাদের পাপকে মূল্য দেয়।

লক্ষ করুন কীভাবে যীশুর এই বলিদান আমাদের দেওয়া হয়েছে। এটি একটি… উপহার হিসাবে দেওয়া হয়েছে। উপহার সম্পর্কে চিন্তা করুন। উপহারটি যাই হোক না কেন, এটি যদি সত্যিই উপহার হয় তবে আপনি এর পক্ষে কাজ করেন না এবং যোগ্যতার দ্বারা উপার্জন করেন না। আপনি যদি এটি অর্জন করেন তবে উপহারটি আর উপহার থাকে না! একইভাবে আপনি যীশুর বলিদানকে যোগ্যতা বা উপার্জন করতে পারবেন না। এটি আপনাকে উপহার হিসাবে দেওয়া হয়েছে।

আর উপহারটি কী? এটি ‘অনন্তজীবন’। এর অর্থ হ’ল পাপ যা আপনার জীবনে মৃত্যু এনেছিল তা এখন বাতিল হয়ে গেছে। যীশুর বলিদান হল এমন একটি সেতু যার উপর দিয়ে আপনি ঈশ্বরের সাথে সংযোগ স্থাপন করতে এবং জীবন লাভ করতে পারেন – যা চিরকাল স্থায়ী হয়। এই উপহারটি যীশু দিয়েছেন, যিনি মৃতদের মধ্য থেকে পুনরুত্থিত হয়ে নিজেকে ‘প্রভু’ বলে দেখান।

তাহলে আপনি এবং আমি কীভাবে জীবনের এই সেতুতে ‘ক্রস’ করব যা যীশু আমাদের উপহার হিসাবে দিয়েছেন? আবার, উপহারের কথা ভাবুন। যদি কেউ এসে আপনাকে উপহার দেয় তবে এটি এমন কিছু যা আপনার পক্ষে কাজ করে না। তবে উপহারটি থেকে কোনও উপকার পাওয়ার জন্য আপনাকে অবশ্যই এটি ‘গ্রহণ’ করতে হবে। যে কোনও সময় উপহার দেওয়ার জন্য দুটি বিকল্প রয়েছে। হয় উপহারটি প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে (“আপনাকে ধন্যবাদ না”) বা এটি প্রাপ্ত হয়েছে (“আপনার উপহারের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। আমি এটি গ্রহণ করব”)। সুতরাং যীশু যে এই উপহার প্রদান করবেন তা অবশ্যই গ্রহণ করা উচিত। এটিকে কেবল ‘বিশ্বাস’ করা, অধ্যয়ন করা বা বোঝা যায় না। এটি পরবর্তী চিত্রটিতে চিত্রিত করা হয়েছে যেখানে আমরা সেতুতে শ্বরের দিকে মনোনিবেশ করে এবং তিনি আমাদের যে উপহার দিয়েছিলেন তা গ্রহণ করে সেতুতে ‘হাঁটাচলা’ করে।

যিশুর ত্যাগ একটি উপহার যা আমাদের প্রত্যেককে গ্রহণ করার জন্য বেছে নিতে হবে

তাহলে আমরা কীভাবে এই উপহারটি পাব? বাইবেল বলে যে

12 এক্ষেত্রে ইহুদী ও অইহুদীদের মধ্যে কোন পার্থক্য নেই, একই প্রভু সকলের প্রভু৷ যত লোক তাঁকে ডাকে সেই সকলের ওপর তিনি প্রচুর আশীর্বাদ ঢেলে দেন৷ যে কেউ প্রভুর নামে ডাকে সে রক্ষা পাবে

রোমীয় 10:12

লক্ষ্য করুন যে এই প্রতিশ্রুতি ‘প্রত্যেকের’ জন্য, সেগুলি নির্দিষ্ট ধর্ম, বর্ণ বা দেশের নয়। যেহেতু তিনি মৃতদের মধ্য থেকে পুনরুত্থিত হয়েছেন যীশু এখনও বেঁচে আছেন এবং তিনি ‘প্রভু’। সুতরাং আপনি যদি তাকে ডাকেন তিনি শুনবেন এবং তাঁর জীবন উপহার আপনার কাছে প্রসারিত করবেন। আপনাকে তাঁকে ডাকতে হবে এবং তাঁর সাথে কথোপকথন করতে হবে। হয়ত আপনি এটি কখনও করেন নি। এখানে একজন পথপ্রদর্শক আছে যিনি আপনাকে তাঁর সাথে এই কথোপকথন এবং প্রার্থনা করতে সাহায্য করতে পারেন। এটি কোনও যাদু মন্ত্র নয়। শক্তি দেয় এমন নির্দিষ্ট শব্দ নয়।

প্রিয় প্রভু যীশু। আমি বুঝতে পারি যে আমার জীবনের পাপগুলির সাথে আমি ঈশ্বরের কাছ থেকে পৃথক হয়েছি। যদিও আমি কঠোর চেষ্টা করতে পারি, তবুও আমার পক্ষ থেকে কোনও প্রচেষ্টা এবং ত্যাগ এই বিচ্ছিন্নতা আটকাবে না। তবে আমি এটা বুঝতে পারি যে আপনার মৃত্যু সমস্ত পাপ এমনকি আমার পাপকে ধুয়ে দেওয়ার জন্য একটি আত্মত্যাগ ছিল। আমি বিশ্বাস করি যে আপনার আত্মত্যাগের পরে আপনি মৃতদের মধ্য থেকে উঠেছিলেন তাই আমি আপনার আত্মত্যাগকে জানতে পারিআমি আপনাকে বলছি দয়া করে আমাকে আমার পাপ থেকে ধৌত করুন এবং আমাকে ঈশ্বরের কাছে থাকতে সাহায্য করুন যাতে আমি অনন্ত জীবন পেতে পারি। আমি পাপের দাস হয়ে জীবন যাপন করতে চাই না তাই দয়া করে আমাকে এই পাপসমূহ থেকে মুক্ত করুন যা আমাকে কর্মের কবলে রেখেছে। আপনাকে ধন্যবাদ, প্রভু যীশু, এই সমস্ত কিছুর জন্য ধন্যবাদ এবং আপনি আমার জীবনের পথপ্রদর্শক হযে সারাজীবন চালিয়ে যাও যাতে আমি আপনাকে আমার প্রভু হিসাবে অনুসরণ করতে পারি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *